একনজরে বিটকয়েনের মূল্যের ইতিহাস
সুচিপত্র
ভূমিকা
বিটকয়েনের মূল্যের ইতিহাস কিভাবে বিশ্লেষণ করবেন
কোন কারণগুলো প্রাথমিক বিটকয়েন ট্রেডিংকে প্রভাবিত করেছিল?
বর্তমানে কোন বিষয়গুলো বিটকয়েন ট্রেডিংকে প্রভাবিত করে?
বিটকয়েনের মূল্যের ইতিহাস
স্বল্পমেয়াদী মূল্য পরিস্থিতি
আমরা কিভাবে বিটকয়েনের দীর্ঘমেয়াদী মূল্যের ইতিহাস ব্যাখ্যা করব?
শেষ কথা 
একনজরে বিটকয়েনের মূল্যের ইতিহাস
হোম
নিবন্ধ
একনজরে বিটকয়েনের মূল্যের ইতিহাস

একনজরে বিটকয়েনের মূল্যের ইতিহাস

প্রকাশিত হয়েছে Aug 5, 2021আপডেট হয়েছে Dec 7, 2022
14m

TL;DR

2009 সালে বিটকয়েন তৈরি হওয়ার পর থেকে মূল্যের ক্ষেত্রে এটি পাঁচটি উল্লেখযোগ্য উত্থানের মধ্য দিয়ে গেছে। এখনো পর্যন্ত, ক্রিপ্টোকারেন্সির সর্বকালের সর্বোচ্চ প্রায় 64,000 মার্কিন ডলারে পৌঁছেছে এবং মূলধারায় প্রয়োগযোগ্যতা বৃদ্ধি পেয়েছে। ঘনঘন রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক এবং নিয়ন্ত্রণমূলক ঘটনাবলীর সাথে তাল মিলিয়ে চলার এই যাত্রাটি অস্থির ছিল।

বিটকয়েন গড়ে, প্রতি বছর 200% প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে। আগস্ট 2021 পর্যন্ত, বিটকয়েনের মার্কেট ক্যাপ মোটামুটি $710,000,000,000 ছিল এবং ক্রিপ্টো মার্কেটে এর কর্তৃত্ব ছিল 50% এর সামান্য নিচে।

2014 সালের মাউন্ট গক্স এক্সচেঞ্জ হ্যাক হওয়া এবং 2020 সালে স্টক মার্কেটে ধ্বস নামার মতো ঘটনাগুলো থেকে মূল্যের কিছু স্বল্প এবং মধ্য-মেয়াদী আচরণের ব্যাখ্যা পাওয়া যায়। দীর্ঘমেয়াদে, আপনি টেকনিক্যাল, ফান্ডামেন্টাল এবং সেন্টিমেন্ট অ্যানালাইসিস ব্যবহার করে এমন মডেলগুলো দেখে একটি সামষ্টিক দৃষ্টিভঙ্গি পেতে পারেন।

টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিসের জন্য, বিটকয়েনের লগারিদমিক গ্রোথ কার্ভ এবং হাইপারওয়েভ তত্ত্ব দুটি আকর্ষণীয় মডেল। হাইপারওয়েভ তত্ত্বটি চক্রাকার পর্যায়ক্রমটিতে বিনিয়োগকারীর আবেগের সাথে মূল্যকেও যুক্ত করে। ফান্ডামেন্টাল অ্যানালাইসিসের ক্ষেত্রে, স্টক টু ফ্লো এবং মেটকাফ মডেলগুলো বিটকয়েনের মূল্যকে যুক্তিসঙ্গতভাবে ট্র্যাক করে। পরিশেষে, আপনি ভারসাম্যপূর্ণ দৃষ্টিভঙ্গি পেতে এই সবগুলো পদ্ধতির সংমিশ্রণ ব্যবহার করতে পারেন।


ভূমিকা

বিটকয়েন (BTC) 2009 সাল থেকে এর মূল্যের ব্যাপক বৃদ্ধির কারণে বিশ্বজুড়ে মানুষের চিন্তাচেতনায় গেড়ে বসেছে। তাই বলে, এটি যে শুধু সমানে ঊর্ধ্বমুখী গতিতে চলেছে আর লাভ অর্জন করেছে তা নয়। বিটকয়েনও মন্দগতি এবং নিম্নমুখী বাজারের সম্মুখীন হয়েছে। অস্থিরতা সত্ত্বেও, ক্রিপ্টোকারেন্সি এখনো পর্যন্ত সকল প্রথাগত অ্যাসেটকে ছাড়িয়ে গেছে। একাধিক নিয়ামকের সংমিশ্রণে বিটকয়েনের মূল্যের ইতিহাস গড়ে উঠেছে এবং বিভিন্ন কৌশলে ও নানান দৃষ্টিভঙ্গি থেকে সেগুলো অধ্যয়ন করতে পারেন।

cta1


বিটকয়েনের মূল্যের ইতিহাস কিভাবে বিশ্লেষণ করবেন

আমরা ডেটাতে প্রবেশ করার আগে, আসুন দেখি আপনি কিভাবে বিটকয়েনের মূল্যের ইতিহাস বিশ্লেষণ করতে পারেন। এর তিনটি ভিন্ন পদ্ধতি রয়েছে: টেকনিক্যাল, ফান্ডামেন্টাল এবং সেন্টিমেন্ট অ্যানালাইসিস। প্রত্যেক পদ্ধতির নিজস্ব শক্তি ও দুর্বলতা রয়েছে তবে একনজরে পরিষ্কারভাবে বুঝতে সেগুলোকে সমন্বিত করা যেতে পারে।

1.টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস (TA): ভবিষ্যত মার্কেটের আচরণ বোঝার চেষ্টা করতে এবং ভবিষ্যদ্বাণী করতে মূল্য এবং ভলিউম-এর অতীত ডেটার ব্যবহার। উদাহরণস্বরূপ, আপনি শেষ 50 দিনের মূল্য নিয়ে এবং সেগুলোর গড় করে 50-দিনের একটি সিম্পল মুভিং এভারেজ (SMA) তৈরি করতে পারেন। আপনি আপনার অ্যাসেটের মূল্য চার্টে এটি প্লট করে SMA-এর সাহায্যে একটি অনুমান করতে পারেন। উদাহরণস্বরূপ, মানে করুন বিটকয়েন 50-দিনের SMA-এর অধীনে কয়েক সপ্তাহ ধরে ট্রেড করছিল কিন্তু তারপর সেটি পার হয়ে যায়। এই গতিটিকে সম্ভাব্য পুনরুদ্ধারের একটি চিহ্ন হিসাবে ধরা যেতে পারে।

2.ফান্ডামেন্টাল অ্যানালাইসিস (FA): কোনো প্রজেক্ট বা ক্রিপ্টোকারেন্সির মৌলিক, অভ্যন্তরীণ মূল্যের প্রতিনিধিত্বকারী ডেটার ব্যবহার। এই ধরনের গবেষণায় একটি অ্যাসেটের প্রকৃত মূল্য খতিয়ে দেখতে এবং তা প্রতিষ্ঠিত করতে বাহ্যিক এবং অভ্যন্তরীণ কারণগুলোর উপর জোর দেওয়া হয়। উদাহরণস্বরূপ, নেটওয়ার্কের জনপ্রিয়তা পরিমাপ করতে আপনি বিটকয়েনের প্রতিদিনের লেনদেন দেখতে পারেন। যদি সময়ের সাথে সাথে এই সংখ্যা বাড়ে, তাহলে এ থেকে ধরে নেওয়া যেতে পারে যে, প্রজেক্টটির মূল্য আছে এবং দাম বাড়তে পারে।

3.সেন্টিমেন্ট অ্যানালাইসিস (SA): মূল্যের গতিবিধির পূর্বাভাস পেতে মার্কেট সেন্টিমেন্ট-এর ব্যবহার। কোনো অ্যাসেটের প্রতি বিনিয়োগকারীদের অনুভূতি এবং মেজাজ মিলে মার্কেট সেন্টিমেন্ট গড়ে ওঠে। সাধারণভাবে এগুলোকে ঊর্ধ্বমুখী বা নিম্নমুখী আবেগে হিসেবে শ্রেণীবদ্ধ করা যেতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, বিটকয়েন কেনার বিষয়ে জনপ্রিয় গুগল সার্চে উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি ইতিবাচক মার্কেট সেন্টিমেন্ট বোঝাতে পারে।


কোন কারণগুলো প্রাথমিক বিটকয়েন ট্রেডিংকে প্রভাবিত করেছিল?

পরবর্তী কাজ হলো, ট্রেডিংকে প্রভাবিত করে এবং মুল্যকে প্রভাবিত করে এমন কারণগুলো অন্বেষণ করা। এগুলো বিটকয়েনের শুরু থেকে সময়ের সাথে পরিবর্তিত হয়েছে। 2009 সালে, বিটকয়েন স্বল্প তারল্যের অত্যন্ত বিশিষ্ট একটি অ্যাসেট ছিল। BitcoinTalk এবং অন্যান্য ফোরামের ব্যবহারকারীদের মধ্যে ওভার-দ্য-কাউন্টার (OTC) ট্রেড করা হয়েছিল যারা বিকেন্দ্রীভূত মুদ্রা হিসাবে বিটকয়েনের মূল্য বুঝতে পেরেছিলেন। আজকে আমরা যে জল্পনা-কল্পনা দেখছি তার ভূমিকা খুব কমই ছিল।

2009 সালের 03 জানুয়ারিতে সাতোশি নাকামোতো 50টি বিটকয়েনের পুরস্কার সহ প্রথম ব্লক মাইন করেন। তারপরে নয় দিনের মাথায় তিনি প্রথম বিটকয়েন লেনদেন হিসেবে হ্যাল ফিনিকে 10 BTC পাঠান। 22 মে, 2010-এ, বিটকয়েনের দাম তখনো $0.01-এর কম ছিল। সেই দিন লাসজলো হ্যানিয়েজের 10,000 BTC-তে দুটি পিজা ক্রয় করার মধ্য দিয়ে বিটকয়েনের প্রথম বাণিজ্যিক লেনদেনও শুরু হয়। সেই সময়ে, Bitcointalk ফোরামের ব্যবহারকারীরা ক্রয়টিকে একটি অভিনবত্ব হিসেবে দেখেছিল। এই ট্রেডটি বর্তমান ব্যবহারের সাথে বৈপরীত্যপূর্ণ, যেখানে আপনি Binance ভিসা কার্ডের মাধ্যমে সহজেই দৈনন্দিন জিনিসপত্র কিনতে পারেন।

বিটকয়েনের দাম এবং জনপ্রিয়তা বেড়ে যাওয়ার সাথে সাথে একটি ক্ষুদ্র, নিয়ন্ত্রণবিহীন ইন্ডাস্ট্রি লেনদেন এবং ট্রেডের সুবিধা প্রদানের সাথে ক্রমশ সম্পৃক্ত হতে থাকে। এর মধ্যে রয়েছে ক্রিপ্টোকারেন্সি এক্সচেঞ্জ এবং ডিপ ওয়েব মার্কেট। বিটকয়েনের দাম মাঝেমাঝেই উল্লেখযোগ্যভাবে প্রভাবিত হতো কারণ এই মার্কেটগুলো এবং এক্সচেঞ্জগুলো হ্যাক, বন্ধ বা নিয়ন্ত্রিত হতো। কিছু হ্যাক হওয়া এক্সচেঞ্জে বিটকয়েনের যথেষ্ট সরবরাহ ছিল, যার ফলে মূল্যের উপর বড় ধরনের ধাক্কা আসে এবং মার্কেটে আস্থার অভাব ঘটে। পরবর্তীতে আমরা এই বিষয়টি নিয়ে আরো খতিয়ে দেখব।


বর্তমানে কোন বিষয়গুলো বিটকয়েন ট্রেডিংকে প্রভাবিত করে?

বিটকয়েনের শুরুর দিনগুলোর তুলনায় বর্তমানে প্রথাগত অ্যাসেটের সাথে তার বেশি মিল খুঁজে পাওয়া যায়। খুচরা ক্রয়-বিক্রয়, অর্থ ব্যবস্থা এবং রাজনীতিতে বর্ধিত প্রয়োগের অর্থ হলো আরো বেশি নিয়ামক বিটকয়েনের মূল্য ও ট্রেডিংকে প্রভাবিত করতে থাকবে। ভার্চুয়াল মুদ্রায় প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগও বাড়ছে, যেখানে অনুমান একটি বড় জায়গা দখল করবে। এসব কথার অর্থ হলো, বিটকয়েনের ট্রেডিংকে প্রভাবিত করার নিয়ামকগুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এর প্রথম দিনগুলোর থেকে আলাদা। সেগুলোর মধ্য থেকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণগুলো নিয়ে আলোচনা করা যাক।

1. আগের দিনের তুলনায় বর্তমানে বিটকয়েনের নিয়ন্ত্রণ অনেক বেশি। যেহেতু সরকারগুলো ক্রিপ্টোকারেন্সি এবং ব্লকচেইন প্রযুক্তিকে আরো বেশি বুঝতে শুরু করেছে, তাই তাদের নিয়ন্ত্রণ এবং নিয়ন্ত্রক ইনপুট বাড়ছে। নিয়ন্ত্রণ কঠোর করা এবং শিথিল করা উভয়েরই নিজস্ব প্রভাব রয়েছে। বিটকয়েনের মূল্যের কিছু পরিবর্তন এক দেশে BTC নিষিদ্ধ করা বা অন্য দেশে এর জনপ্রিয়তার সাথে সম্পর্কিত।

2. বৈশ্বিক অর্থনীতির অবস্থা এখন বিটকয়েনের মূল্য এবং ট্রেডিংয়ের একটি প্রত্যক্ষ নিয়ামক। উদাহরণস্বরূপ, উচ্চ মুদ্রাস্ফীতির দেশগুলোতে বসবাসকারী লোকেরা মুদ্রাস্ফীতির মোকাবেলায় হেজ হিসাবে ক্রিপ্টোকারেন্সির দিকে ঝুঁকছে। 2016 সালে শুরু হওয়া ভেনেজুয়েলার অর্থনৈতিক সংকটের ফলস্বরূপ, আমরা ভেনেজুয়েলান বলিভারে LocalBitcoins-এর ট্রেডিংয়ের পরিমাণ রেকর্ড মাত্রায় উচ্চ হতে দেখেছি। 2020 সালে স্টক মার্কেটে ধ্বসের সময় বিটকয়েনের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতার সূচনা হতে দেখা গিয়েছিল যা এক বছরেরও বেশি সময় ধরে চলেছিল। বিটকয়েনকে এখন স্টোর অব ভ্যালু হিসেবে দেখা হয়, অনেকটা সোনার মতো। যখন অর্থনীতির অন্যান্য অংশে আস্থা কমে যায়, তখন লোকেরা এই অ্যাসেটগুলো কিনে থাকে।

পরিমাণ স্থানীয় বিটকয়েন ভেনিজুয়েলা বলিভার


3. বড় বড় কোম্পানির দ্বারা মূলধারায় প্রয়োগের বৃদ্ধি বিটকয়েনের মূল্যের ক্রমাগত বৃদ্ধি ঘটাতে পারে। পেপ্যাল, স্কয়ার, ভিসা, এবং মাস্টারকার্ড সবগুলোতেই ক্রিপ্টোকারেন্সির জন্য কিছু সাপোর্ট আছে, যা বিনিয়োগকারীদের নির্ভরতা এনে দিয়েছে। খুচরা বিক্রেতারা এমনকি বিটকয়েন পেমেন্ট গ্রহণ করা শুরু করেছে। সাপোর্ট প্রত্যাহার থেকেও বিক্রির সূত্রপাত ঘটাতে পারে, যেমন ইলন মাস্কের 17 মে, 2021-এ টেসলা কর্তৃক বিটকয়েন পেমেন্ট বন্ধ করার ঘোষণা। এই ক্ষেত্রে, মূল্য সেই দিন প্রতি BTC-এর মূল্য $55,000 থেকে মোটামুটি $48,500-তে নেমে গিয়েছিল।

বিটকয়েন চার্ট ইলন মাস্কের টুইট


4. বর্ধিত অনুমান এবং ডেরিভেটিভস যেমন বিটকয়েন ফিউচার মার্কেটে অতিরিক্ত চাহিদা সঞ্চালিত করেছে। BTC এর মৌলিক মূল্যের জন্য বিনিয়োগ এবং হোল্ড করার পরিবর্তে, ট্রেডার এবং স্পেকুলেটররা ফিউচার মার্কেটে মুনাফার জন্য BTC শর্ট করে, যার ফলে মূল্যের উপর নিম্নমুখী চাপ পড়ে। এর মানে হলো, বিটকয়েনের মূল্য আর শুধুমাত্র এর উপযোগিতার উপর নির্ভর করে না।


বিটকয়েনের মূল্যের ইতিহাস

2009 সাল থেকে, বিটকয়েনের মূল্য বড় ধরনের অস্থিরতার মুখে পড়েছে। উল্লিখিত কারণগুলো সবই এর সার্বিক অগ্রযাত্রায় অবদান রেখেছে। যদিও মূল্যের উত্থান-পতন হয়েছে, তবুও শুরুর সময়ের চেয়ে এর মূল্য নাটকীয়ভাবে বেশি। 

আমরা যে বিটকয়েনকে NASDAQ 100 এবং স্বর্ণের সাথে তুলনা করি, তার কারণ আপনি দেখতে পাবেন যে এটি এই দুটি প্রথাগতভাবে অত্যন্ত-কার্যকারি অ্যাসেটকে ব্যাপকভাবে ছাড়িয়ে গেছে। এটির অস্থিরতাও আপনার চোখে পড়তে পারে, কারণ বিটকয়েনের বার্ষিক ক্ষতিও শতকরা হারে স্বর্ণ বা NASDAQ 100-এর (@CharlieBilello থেকে প্রাপ্ত ডেটা) সম্মুখীন হওয়া যেকোনো ক্ষতির তুলনায় বেশি।


2011

2012

2013

2014

2015

2016

2017

2018

2019

2020

বিটকয়েন

1473%

186%

5507%

-58%

35%

125%

1331%

-73%

95%

301%

সোনা

9.6%

6.6%

-28.3%

-2.2%

-10.7%

8.0%

12.8%

-1.9%

17.9%

24.8%

NASDAQ 100

3.4%

18.1%

36.6%

19.2%

9.5%

7.1%

32.7%

-0.1%

39.0%

48.6%


কেসবিটকয়েন অনুসারে, BTC 10-বছরের CAGR (যৌগিক বার্ষিক বৃদ্ধির হার) 196.7% হতে দেখা গেছে। CAGR চক্রবৃদ্ধির নিরিখে কোনো অ্যাসেটের বার্ষিক বৃদ্ধির হার পরিমাপ করে থাকে। বিটকয়েনের মূল্যের ক্ষেত্রে পাঁচটি উল্লেখযোগ্য উত্থানের ঘটনা রয়েছে, যা 2011 সালে মাত্র $1 থেকে বেড়ে 2021 সালের মে মাসে সর্বকালের সর্বোচ্চ $65,000- এ পৌঁছেছিল। এযাবতকালের ইতিহাসকে পাঁচটি সুস্পষ্ট উত্থান দিয়ে চিহ্নিত করা যাক।


বিটকয়েনের মূল্য 2009-2021 lookintobitcoin


1. জুন 2011: আগের বছরে যেখানে বিটকয়েনের মূল্য শুধুই সেন্টে পরিমাপ করা হতো, সেখান থেকে মূল্য বেড়ে $32-এ উন্নীত হয়। মাঝারি মাত্রার মূল্যপতনের ফলে $2.10-এ নেমে আসার ঠিক পরপরই বিটকয়েনে প্রথমবারের মতো ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা দেয়।

2. এপ্রিল 2013: মোটামুটি $13 দিয়ে বছর শুরু হওয়ার পর, বিটকয়েনে বছরের প্রথম ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা দেয়, যা 10 এপ্রিল, 2013-এ বেড়ে $260-এ পৌঁছে। পরবর্তী দুই দিনে মূল্যপতন হয়ে $45-এ নেমে আসে।

3. ডিসেম্বর 2013: বছরের শেষ নাগাদ, অক্টোবর এবং ডিসেম্বরের মধ্যে বিটকয়েনের মূল্য প্রায় 10-গুণ বেড়ে যায়। অক্টোবরের শুরুতে, BTC $1,160-এর উত্থানে পৌঁছানোর আগে $125-এ ট্রেড করছিল। 18 ডিসেম্বরের মধ্যে, মূল্যপতন হয়ে আবার 380 ডলারে নেমে যায়।

4. ডিসেম্বর 2017: 2017 সালের জানুয়ারিতে মোটামুটি $1,000 থেকে শুরু করার পর, বিটকয়েনের দাম 17 ডিসেম্বর, 2017-এর মধ্যে দ্রুত বেড়ে $20,000 থেকে সামান্য কম ছিল। এই ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা মূলধারায় বিটকয়েনের অবস্থানকে শক্তিশালী করার মাধ্যমে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের এবং সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে।

5. এপ্রিল 2021: 2020 সালের মার্চ মাসে স্টক মার্কেট এবং ক্রিপ্টো মার্কেটে ধ্বসের ফলে 13 এপ্রিল, 2021-এর মধ্যে টেকসই মূল্য $63,000 পর্যন্ত বৃদ্ধি পায়। করোনাভাইরাস মহামারীজনিত অর্থনৈতিক অস্থিতিশীলতা কারণে, বিটকয়েনকে কেউ কেউ মূল্য মজুদের উপায় হিসেবে ধরে নিয়েছিলেন। BTC এবং ক্রিপ্টো মার্কেটে মূল্য স্থবিরতা আসার আগে 2021 সালের মে মাসে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বিক্রয় সম্পন্ন হয়েছিল।

cta2


স্বল্পমেয়াদী মূল্য পরিস্থিতি

এরপর আমরা যে মৌলিক এবং প্রযুক্তিগত মডেলগুলো ব্যবহার করব তা মূল্যের ক্ষেত্রে আমরা যে আচরণ ঘটতে দেখি সেটি সর্বদা বর্ণনা করতে পারে না। রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক ঘটনা সহ বাহ্যিক কারণগুলো বড় ভূমিকা পালন করে যা আপনি পৃথকভাবে বিশ্লেষণ করতে পারেন। বিবেচনার জন্য উজ্জ্বল একটি উদাহরণ হলো সেই বিখ্যাত হ্যাকের ঘটনা যা বিটকয়েনের প্রথম দিনগুলোতে ঘটেছিল।

মাউন্ট গক্স এক্সচেঞ্জ হ্যাক

মাউন্ট গক্স বিটকয়েন এক্সচেঞ্জ হ্যাক ছিল 2014 সালে একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা যে কারণে বিটকয়েনের মূল্যে সাময়িক পতন ঘটেছিল। সেই সময়ে, টোকিও-ভিত্তিক ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জ ছিল বাজারে সবচেয়ে বড়, যার ট্রেডিংয়ের পরিমাণ ছিল বিটকয়েনের মোট সরবরাহের প্রায় । সৃষ্টির পর থেকে নিয়ে 2010 সালে মাউন্ট গক্স অসংখ্য হ্যাকের শিকার হলেও শেষ পর্যন্ত টিকে গিয়েছিল।

তবে, 2014 সালের হ্যাকের ঘটনায় মোটামুটি 850,000 BTC চুরি গিয়েছে, যার ফলে এক্সচেঞ্জের বেশিরভাগ ডিজিটাল অ্যাসেট নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। মাউন্ট গক্স 2014 সালের 14 ফ্রেব্রুয়ারি তারিখে উত্তোলন স্থগিত করে, যার ফলে সপ্তাহের বেশিরভাগ সময় $850-এ ট্রেড করার পর বিটকয়েনের দাম প্রায় 20% কমে প্রায় $680 হয়।

শেষ পর্যন্ত, হ্যাকাররা ব্যবহারকারীদের ফান্ড থেকে $450,000,000 (USD) নিয়ে যায় এবং মাউন্ট গক্স দেউলিয়া হয়ে যায়। কিছু কিছু প্রাক্তন ব্যবহারকারী দাবি করেছেন যে ওয়েবসাইটের কোড নিয়ে কিছু সমস্যা ছিল যা সময়মতো ঠিক করা হয়নি। হ্যাক হওয়ার পিছনের কারণগুলো আজও স্পষ্ট নয়, যার ফলে এক্সচেঞ্জের সিইও মার্ক কার্পেলের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা চলমান রয়েছে এবং আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।


আমরা কিভাবে বিটকয়েনের দীর্ঘমেয়াদী মূল্যের ইতিহাস ব্যাখ্যা করব?

দীর্ঘমেয়াদে, ক্ষুদ্র, কম-গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা দামের উপর সামান্যই প্রভাব ফেলে। এই কারণে, বিটকয়েনের সামগ্রিক ইতিবাচক ট্র্যাজেক্টোরি ব্যাখ্যা করার জন্য অন্যান্য পদ্ধতিগুলো সম্পর্কে জানাটা আগ্রহোদ্দীপক হবে। একটি অপশন হলো বিশ্লেষণমূলক মডেল সম্পর্কে জানা যা উপরে আমাদের ইতোমধ্যে উল্লেখ করা কৌশলগুলো ব্যবহার করে।

ফান্ডামেন্টাল অ্যানালাইসিস: স্টক টু ফ্লো মডেল

স্টক-টু-ফ্লো মডেলটি মূল্যের সম্ভাব্য সূচক হিসেবে বিটকয়েনের সীমিত সরবরাহ ব্যবহার করে। মৌলিক স্তরে, বিটকয়েন কিছুটা সোনা বা হীরার মতো। সময়ের সাথে সাথে, এই দুটি প্রোডাক্টের অভাবের কারণে সেগুলোর মূল্য বেড়েছে। এই ফ্যাক্টরটির কারণে বিনিয়োগকারীরা সেগুলোকে মূল্যের মজুদ হিসেবে ব্যবহার করতে পারে।

আপনি যদি টোটাল সার্কুলেটিং গ্লোবাল সাপ্লাই (স্টক) নেন এবং এটিকে বছরে উৎপাদিত মোট পরিমাণ (ফ্লো) দ্বারা ভাগ করেন, তাহলে আপনি সময়ের সাথে সাথে বিটকয়েনের মূল্যের মডেল তৈরিতে এই অনুপাতটি ব্যবহার করতে পারেন। আমরা ইতোমধ্যেই জানি যে, নতুন বিটকয়েন মাইনাররা ঠিক কত পরিমাণ উৎপন্ন করবে এবং মোটামুটিভাবে তারা কখন সেগুলো পাবে। সহজ কথায়, মাইনিং-এর রিটার্ন কমছে, এবং এটি একটি ক্রমবর্ধমান স্টক-টু-ফ্লো অনুপাত তৈরি করে।

স্টক টু ফ্লো বিটকয়েনের মূল্য ইতিহাসের মডেলিংয়ে এখনও পর্যন্ত সঠিকতার কারণে জনপ্রিয় প্রমাণিত হয়েছে। আপনি নিচে একটি 365-দিনের SMA এবং বিটকয়েনের ঐতিহাসিক মূল্যের ডেটা এবং ভবিষ্যতের জন্য সেটি কী বার্তা দেয় তা দেখতে পারেন।

স্টক টু ফ্লো মডেল বিটকয়েন


মডেলটির কিছু ত্রুটি রয়েছে। সময়ের সাথে সাথে, যখন বিটকয়েনের ফ্লো শূন্যে পৌঁছলে, মডেলটি শেষ পর্যন্ত ভেঙে যাবে কারণ আপনি শূন্য দিয়ে ভাগ করতে পারবেন না। এই হিসাবটি থেকে অসীমতার দিকে ঝোঁকপ্রবণ অসম্ভাব্যতাপূর্ণ মূল্যের পূর্বাভাস পাওয়া যায়। আপনি আমাদের বিটকয়েন এবং স্টক টু ফ্লো মডেল নিবন্ধে স্টক টু ফ্লো-এর সুবিধা এবং অসুবিধা সম্পর্কে আরো পড়তে পারেন।


ফান্ডামেন্টাল অ্যানালাইসিস: মেটকাফের নিয়ম

মেটকাফের নিয়ম হলো একটি সাধারণ কম্পিউটিং নীতি যা আপনি বিটকয়েন নেটওয়ার্কেও প্রয়োগ করতে পারেন। এ থেকে বোঝা যায় যে, একটি নেটওয়ার্কের মান এর সাথে সংযুক্ত ব্যবহারকারীর সংখ্যার বর্গক্ষেত্রের সমানুপাতিক। এর অর্থ আসলে কী? একটি সহজে বোঝার উদাহরণ হলো ফোন নেটওয়ার্ক। যত বেশি মানুষের নিজের ফোন থাকবে, নেটওয়ার্ক তত বেশি মূল্যবান হয়ে উঠবে। 

বিটকয়েনের সাথে, আপনি ব্লকচেইনে সক্রিয় বিটকয়েন ওয়ালেট অ্যাড্রেসের সংখ্যা এবং অন্যান্য সর্বজনীন তথ্য ব্যবহার করে একটি মেটকাফ মান হিসাব করতে পারেন। আপনি যদি মূল্যের বিপরীতে রেখে মেটকাফের মান প্লট করেন, তাহলে আপনি সেটিকে যুক্তিসঙ্গতভাবে কার্যকর দেখতে পাবেন। আপনি ভবিষ্যতের সম্ভাব্য দামের পূর্বাভাস দেওয়ার প্রবণতাকে এক্সট্রাপোলেট করতে পারেন, নিচের গ্রাফে টিমোথি পিটারসন যেভাবে করেছেন।

বিটকয়েন মেটকাফ নেটওয়ার্ক ভ্যালু


নেটওয়ার্ক ভ্যালু টু মেটকাফ রেশিও (NVM)-তে মেটকাফের নিয়মের আরেকটি ব্যবহার দেখানো হয়েছে। আপনি বিটকয়েনের মার্কেট ক্যাপ সংগ্রহ করে এবং মেটকাফের নিয়ম অনুযায়ী আনুমানের সূত্র দ্বারা এটিকে ভাগ করে অনুপাত হিসাব করতে পারেন। সূত্রটি নেটওয়ার্কের ব্যবহারকারীদের জন্য স্ট্যান্ড-ইন হিসেবে কোনো নির্দিষ্ট দিনে সক্রিয় অনন্য অ্যাড্রেসের সংখ্যা ব্যবহার করে। অনন্য অ্যাড্রেসগুলোকে নন-জিরো ব্যালেন্স এবং সেই দিনে একটি লেনদেন সম্পন্ন করা অ্যাড্রেস হিসেবে সংজ্ঞায়িত করা হয়।

এক-এর উপরের মান একটি অতিমূল্যায়িত মার্কেট এবং এক-এর নিচের মান একটি অবমূল্যায়িত মার্কেটকে নির্দেশ করে। আপনি ক্রিপ্টোকারেন্সি থেকে নিচের গ্রাফের সাহায্যে এটির চেহারা কেমন হতে পারে তা দেখতে পারেন। NVM অনুপাত হলো বাম অক্ষ, যখন নেটওয়ার্কের মান থাকে ডানদিকে।

বিটকয়েন নেটওয়ার্ক ভ্যালু থেকে মেটকাফ NVM অনুপাত


টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস: বিটকয়েনের লগারিদমিক গ্রোথ কার্ভ

বিটকয়েনের লগারিদমিক গ্রোথ কার্ভ হলো কোল গার্নারের তৈরিকৃত 2019 সালের একটি টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস মডেল। স্ট্যান্ডার্ড বিটকয়েন মূল্য চার্ট x-অক্ষে রৈখিক সময়ের বিপরীতে লগারিদমিক (লগ) মূল্য প্রদর্শন করে। তবে, আপনি যদি সময়কেও লগভুক্ত করেন, তাহলে আপনি একটি সরল ট্রেন্ড লাইন আঁকতে পারবেন যা শেষ তিনটি ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা এবং বিটকয়েন মার্কেট সাপোর্ট লেভেলের সাথে মেলে।

বিটকয়েন লগ প্রবৃদ্ধি কার্ভ


এই লাইনগুলোকে আবার আমাদের মূল লগ প্রাইস গ্রাফে রূপান্তরিত করা যেতে পারে, যাতে সেটি থেকে আমরা একটি বৃদ্ধির বক্ররেখা পেতে পারি যা এখনও পর্যন্ত বিটকয়েনের মূল্য ইতিহাসের সাথে মোটামুটি সঠিকভাবে মিলেছে, যেমনটি LookIntoBitcoin.com থেকে প্রাপ্ত নিচের চার্টে দেখা যাচ্ছে।

বিটকয়েন লগ প্রবৃদ্ধি কার্ভ


টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস: হাইপারওয়েভ তত্ত্ব

টাইলার জেঙ্কস হাইপারওয়েভ তত্ত্বটি ডেভলপ করেন এবং বিনিয়োগকারীদের আবেগের ভিত্তিতে মূল্য ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করেন। তত্ত্বটির মূল কথা হলো, মার্কেটের অনুভূতি বারবার আশা এবং হতাশার মাঝে দোল খেতে থাকে। এই অনুভূতিগুলো প্রায়ই একটি হাইপারওয়েভের দিকে নিয়ে যায় যেখানে মূল্য নিম্নমুখী প্রবণতায় উল্টে যাওয়ার আগে সময়ের সাথে সাথে তা বাড়তে থাকে। যদিও জেঙ্কস তাত্ত্বিকভাবে বলতে চেয়েছেন যে, প্যাটার্নটি মার্কেটের অনুভূতি থেকে উদ্ভূত হয়, তবুও গ্রাফটিতে প্রবণতার লাইন আঁকতে মূল্যের ডেটা সহ টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস ব্যবহার করা হয়। হাইপারওয়েভ তত্ত্ব অনুসারে, প্রতিটি মার্কেট চক্রে সাতটি পর্যায় রয়েছে।

হাইপারওয়েভ মডেল


পর্যায় 1, 5, এবং 7, অ্যাসেটের মূল্য রেজিস্ট্যান্স লাইনের নিচে থাকতে হবে। পর্যায় 2, 3, 4, এবং 6, মূল্য সাপোর্ট লাইনের উপরে থাকতে হবে। প্রতিটি অ্যাসেট যে পুরোপুরি নিয়ম মেনে চলবে তা নয়, তবে কিছু কিছু মার্কেটে প্যাটার্নটি বিদ্যমান থাকার প্রমাণ রয়েছে। আপনি নিচে NASDAQ কম্পোজিট 2000-এর একটি মোটামুটি উদাহরণ দেখতে পারেন, Leah Wald (Valkyrie Investments Inc.-এর সিইও) কর্তৃক গ্রাফিক্যালি উপস্থাপিত।

হাইপারওয়েভ উদাহরণ 1


আসুন 2017 সালে বিটকয়েনের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতার দিকে নজর দেওয়া যাক। আপনি যদি হাইপারওয়েভ তত্ত্বের প্রবণতাগুলো প্রয়োগ করেন, আপনি দেখতে পাবেন যে প্রথম ধাপের বাইরে এটি অনেকটা ভালোভাবে খাপ খেয়েছে। আপনি ক্রমবর্ধমান গতিতে মূল্যের বৃদ্ধি এবং তারপরে একটি বড় ধ্বসও দেখেতে পারেন, যা প্রধানত উপরে বর্ণিত পর্যায়গুলো অনুসরণ করে।

বিটকয়েন হাইপারওয়েভ


শেষ কথা 

একথা স্পষ্ট যে, বিটকয়েনের মূল্যের ইতিহাস ব্যাখ্যা করার চেষ্টায় অনেক তত্ত্ব প্রবর্তিত হয়েছে। কিন্তু উত্তর যাই হোক না কেন, প্রায় 10 বছর ধরে বিটকয়েনের 200% CAGR ডিজিটাল মুদ্রার অবিশ্বাস্য উত্থানকেই তুলে ধরেছে। এমনকি ক্রিপ্টোকারেন্সির মধ্যেও, বিটকয়েন 2021 সালের আগস্ট পর্যন্ত মার্কেটে 50% এর সামান্য কম ধরে রেখে কর্তৃত্ব বজায় রেখেছে, যার মার্কেট ক্যাপ মোটামুটি $710,000,000,000।

এই অবিস্মরণীয় প্রবৃদ্ধির পিছনের কারণগুলোর মধ্যে রয়েছে ক্রিপ্টোর মৌলিক বিষয়, মার্কেটের আবেগ এবং অর্থনৈতিক ঘটনাবলী। তবে, অতীতের কর্মক্ষমতা ভবিষ্যতের ফলাফলের নির্দেশক নয়। কেন বিটকয়েনের এতটা উচ্চ মূল্যের গতিপথ ছিল তা বুঝতে এটি সহায়ক হলেও ভবিষ্যতে কী ঘটবে এটি থেকে আমরা তা বুঝতে পারি না। বৃহত্তর প্রেক্ষাপটে দেখলে, নতুন ধরনের অ্যাসেট হিসেবে বিটকয়েন মাত্র 12 বছরেই অবিশ্বাস্যভাবে পাকাপোক্ত স্থান করে নিয়েছে।