RSI সূচক কী?
RSI সূচক কী?
হোম
নিবন্ধ
RSI সূচক কী?

RSI সূচক কী?

প্রকাশিত হয়েছে Dec 9, 2018আপডেট হয়েছে Oct 4, 2022
4m

রিলেটিভ স্ট্রেংথ ইনডেক্স সূচক

টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস (TA) হলো, মূলত, ভবিষ্যত ট্রেন্ড এবং প্রাইস অ্যাকশন পরীক্ষা করা এবং আগাম ধারণা করার উপায় হিসেবে পূর্ববর্তী মার্কেটের ঘটনাগুলো যাচাই করার অনুশীলন। প্রথাগত থেকে ক্রিপ্টোকারেন্সি মার্কেট পর্যন্ত, বেশিরভাগ ট্রেডার এই বিশ্লেষণগুলো সম্পাদন করার জন্য বিশেষ টুলের উপর নির্ভর করেন যার মধ্যে RSI অন্যতম।

রিলেটিভ স্ট্রেংথ ইনডেক্স (RSI) হলো এমন একটি TA সূচক যা 1970 এর দশকের শেষের দিকে একটি ট্যুল হিসেবে তৈরি করা হয়েছিল যা ট্রেডাররা একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে একটি স্টক কীভাবে কাজ করছে তা যাচাই করতে ব্যবহার করতে পারেন। এটি মূলত, একটি মোমেন্টাম অসিলেটর যা মূল্যের মুভমেন্ট পরিমাপ করে সেইসাথে এই মুভমেন্টের গতিও (বেগ) নির্ণয় করে। ট্রেডার প্রোফাইল এবং সেটির ট্রেডিং সেটআপের উপর নির্ভর করে RSI একটি খুবই সহায়ক ট্যুল হয়ে উঠতে পারে।

রিলেটিভ স্ট্রেংথ ইনডেক্স সূচকটি 1978 সালে জে. ওয়েলেস ওয়াইল্ডার কর্তৃক নির্মিত হয়েছিল। এটি তার বই নিউ কনসেপ্টস ইন টেকনিক্যাল ট্রেডিং সিস্টেমে-এ অন্যান্য TA সূচকে, যেমন প্যারাবোলিক এসএআর, এভারেজ ট্রু রেঞ্জ (ATR), এবং এভারেজ ডিরেকশনাল ইনডেক্স (ADX) ইত্যাদির সাথে উপস্থাপিত হয়েছে।

টেকনিক্যাল অ্যানালিস্ট হওয়ার আগে, ওয়াইল্ডার একজন যন্ত্র-প্রকৌশলী এবং রিয়েল এস্টেট ডেভলপার হিসেবে কাজ করেছিলেন। তিনি 1972 সালের দিকে স্টক ট্রেডিং শুরু করেন কিন্তু খুব বেশি সফল হননি। কয়েক বছর পরে, ওয়াইল্ডার তার ট্রেডিং গবেষণা এবং অভিজ্ঞতাকে গাণিতিক সূত্র এবং সূচক হিসেবে সংকলন করেন যা পরবর্তীতে বিশ্বের অনেক ট্রেডার গ্রহণ করেছিলেন। বইটি মাত্র ছয় মাসের মধ্যে প্রণীত হয়েছিল, এবং 1970 এর দশকের একটি বই হওয়া সত্ত্বেও, আজও এটিকে অনেক চার্টিস্ট এবং ট্রেডার রেফারেন্স হিসেবে গণ্য করেন।


RSI সূচক কিভাবে কাজ করে? 

ডিফল্টরূপে, RSI 14 পিরিয়ডের সময়কালে কোনো সম্পদের মূল্যের পরিবর্তন পরিমাপ করে (দৈনিক চার্টে 14 দিন, ঘন্টার চার্টে 14 ঘন্টা, এবং আরও অনেক কিছু)। সূত্রটি সেই সময়ের মধ্যে মূল্যের গড় বৃদ্ধিকে সেই সময়কালে হওয়া গড় লোকসান দিয়ে ভাগ করে এবং তারপর 0 থেকে 100 এর স্কেলে ডেটা প্লট করে। 

যেমনটি উল্লেখ করা হয়েছে, RSI হলো একটি মোমেন্টাম সূচক, এটি এক ধরনের প্রযুক্তিগত ট্রেডিং টুল যা মূল্য (বা ডেটা) পরিবর্তনের হার পরিমাপ করে। মোমেন্টাম বৃদ্ধি পেলে এবং মূল্য বাড়লে, এটি নির্দেশ করে যে মার্কেটে সক্রিয়ভাবে স্টক কেনা হচ্ছে। যদি মোমেন্টাম উল্টোদিকে বাড়ে তবে এটি দিয়ে বোঝা যায় যে, বিক্রির চাপ বাড়ছে।

RSI হলো একটি দোদুল্যমান সূচক যা ট্রেডারদের জন্য ওভারবট বা ওভারসোল্ড মার্কেটের অবস্থা চিহ্নিত করা সহজ করে তোলে। এটিতে 14টি পিরিয়ড বিবেচনায় নিয়ে 0 থেকে 100 স্কেলে সম্পদের মূল্য মূল্যায়ন করা হয়। যদিও 30 বা তার কম একটি RSI স্কোর থেকে অনুমান করা হয় যে অ্যাসেটটি সম্ভবত সেটির নিম্নস্তরের কাছাকাছি (ওভারসোল্ড) রয়েছে, 70-এর উপরের পরিমাপ নির্দেশ করে যে সেই সময়ের জন্য অ্যাসেটির মূল্য সম্ভবত সেটির উচ্চস্তরের (ওভারবট) কাছাকাছি রয়েছে।

যদিও RSI-এর জন্য ডিফল্ট সেটিংস 14 পিরিয়ড, ট্রেডাররা সংবেদনশীলতা বাড়াতে (স্বল্পসংখ্যক পিরিয়ড) বা সংবেদনশীলতা কমাতে (আরো বেশি পিরিয়ড) সংযোজন-বিয়োজন করতে চাইতে পারেন। অতএব, 21 দিনের তুলনায় একটি 7-দিনের RSI মূল্যের মুভমেন্টের জন্য বেশি সংবেদনশীল হবে। এছাড়ও, স্বল্পমেয়াদী ট্রেডিং সেটআপগুলো RSI সূচককে 20 এবং 80 কে ওভারসোল্ড এবং ওভারবট লেভেল হিসেবে বিবেচনা করতে পারে (30 এবং 70 এর পরিবর্তে), তাই এটির পক্ষে ভুল সংকেত দেওয়ার সম্ভাবনা কম।


বৈচিত্র্যের ভিত্তিতে কিভাবে RSI ব্যবহার করবেন

30 এবং 70-এর RSI স্কোর ছাড়াও - যা থেকে সম্ভাব্য ওভারসোল্ড এবং ওভারবট মার্কেটের অবস্থা বিষয়ে পরামর্শ পাওয়া যেতে পারে - ট্রেন্ড রিভার্সালের চেষ্টা এবং আগাম অনুমান করতে বা সাপোর্ট এবং রেজিস্ট্যান্সের মাত্রা চিহ্নিত করতেও ট্রেডাররা RSI ব্যবহার করে থাকেন। এই ধরনের পদ্ধতির ভিত্তি হলো তথাকথিত বুলিশ এবং বিয়ারিশ ডাইভারজেন্স।

বুলিশ ডাইভারজেন্স এমন একটি শর্ত যেখানে মূল্য এবং RSI স্কোর বিপরীত দিকে চলে যায়। সুতরাং, RSI স্কোর বৃদ্ধি পায় এবং উচ্চতর লো তৈরি করে যখন মূল্য পড়ে গিয়ে নিম্নতর লো তৈরি করে। এটিকে "বুলিশ" ডাইভারজেন্স বলা হয় এবং এটি থেকে বোঝা যায় যে, মূল্যের ডাউনট্রেন্ড সত্ত্বেও ক্রয়ের ক্ষমতা শক্তিশালী হচ্ছে।

বিপরীতপক্ষে, বিয়ারিশ ডাইভারজেন্স থেকে বোঝা যেতে পারে যে, মূল্য বৃদ্ধি সত্ত্বেও, মার্কেট মোমেন্টাম হারাচ্ছে। অতএব, RSI স্কোর কমে যায় এবং নিম্নতর হাই তৈরি করে যখন সম্পদের মূল্য বেড়ে গিয়ে উচ্চতর হাই তৈরি করে।

মনে রাখবেন, তবে, শক্তিশালী মার্কেট ট্রেন্ডের সময় RSI ডাইভারজেন্স ততটা নির্ভরযোগ্য নয়। এর অর্থ হলো, একটি শক্তিশালী ডাউনট্রেন্ড শেষপর্যন্ত নিম্নস্তরে পৌঁছানোর আগে অনেক বুলিশ ডাইভারজেন্স দেখাতে পারে। সেই কারণে, RSI ডাইভারজেন্সগুলো কম অস্থির বাজারের জন্য আরও বেশি উপযুক্ত (পাশাপাশি মুভমেন্ট বা প্রচ্ছন্ন ট্রেন্ডসহ)।


শেষ কথা

রিলেটিভ স্ট্রেংথ ইনডেক্স সূচক ব্যবহার করার সময় বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বিবেচনা করতে হবে, যেমন সেটিংস, স্কোর (30 এবং 70), এবং বুলিশ/বেয়ারিশ ডাইভারজেন্স। তবে, যে কারো পক্ষে সর্বদা মনে রাখা উচিত যে, কোনো টেকনিক্যাল নির্দেশকই 100% কার্যকর নয় - বিশেষ করে যদি এটি এককভাবে ব্যবহৃত হয়। তাই, ভুল সংকেত এড়াতে ট্রেডারদের উচিত RSI সূচকটি অন্যান্য সূচকের সাথে একত্রে ব্যবহার করা।