ব্যান্ড প্রোটোকল (BAND) কী?
সুচিপত্র
ভূমিকা
ব্যান্ড প্রোটোকল কী?
ব্যান্ড প্রোটোকল কিভাবে কাজ করে?
ব্যান্ড প্রোটোকল কোন কনসেনশাস প্রোটোকল ব্যবহার করে?
ব্যান্ড প্রোটোকলের মূল লক্ষ্য কী কী?
শেষ কথা
ব্যান্ড প্রোটোকল (BAND) কী?
হোম
নিবন্ধ
ব্যান্ড প্রোটোকল (BAND) কী?

ব্যান্ড প্রোটোকল (BAND) কী?

প্রকাশিত হয়েছে Jul 27, 2022আপডেট হয়েছে Oct 18, 2022
4m



TL;DR

ব্যান্ড প্রোটোকল (BAND) হল একটি ডেটা ওরাকল প্ল্যাটফর্ম যা বিভিন্ন ব্লকচেইন জুড়ে একাধিক প্রকল্পে পরিষেবা প্রদান করে। এটি একটি ডেলিগেটেড স্ট্যাকের প্রমাণ কনসেনসাস মেকানিজম ব্যবহার করে যেখানে ডেলিগেটর, ভ্যালিডেটর এবং নোড অংশগ্রহন করতে নেটিভ টোকেন BAND-কে স্ট্যাক করে।

অফ-চেইন তথ্যের রিকোয়েস্টগুলো ভ্যালিডেটরদের দ্বারা সংগ্রহ করা হয়, চেইনের জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ করা হয় এবং তারপর রিকোয়েস্ট করা DApps-এ বিতরণ করা হয়।

ভূমিকা

ব্লকচেইন এবং ডিসেন্ট্রালাইজড ফাইন্যান্স (DeFi) দশ বছরের মধ্যে বিশ্বের আর্থিক ব্যবস্থার স্থিতাবস্থা (Status quo) পরিবর্তন করেছে। তবে, যে ডিসেন্ট্রালাইজড অ্যাপ্লিকেশন (DApp) ডেভেলপাররা উল্লেখযোগ্য যে বাধার মুখোমুখি হচ্ছে তা হল নির্ভরযোগ্য, সঠিক বাস্তব-বিশ্বের ডেটা অ্যাক্সেস করা। এই ডেটা উত্সগুলো ব্লকচেইনের বাইরে অবস্থিত এবং অবশ্যই অন-চেইনে ইন্টিগ্রেট হতে হবে। এই সমস্যাটির সমাধানে, ব্যান্ড প্রোটোকলের মতো ওরাকলগুলো ক্রিপ্টো ইকোসিস্টেমে প্রচলিত স্থান হয়ে উঠেছে।

ব্যান্ড প্রোটোকল কী?

ব্যান্ড প্রোটোকল (BAND) হল একটি ক্রস-চেইন ডেটা ওরাকল প্ল্যাটফর্ম যা বাস্তব-বিশ্বের ডেটা একত্রিত করে এবং API ও স্মার্ট কন্ট্রাক্টের সাথে সংযুক্ত করে। 2017 সালে প্রতিষ্ঠিত ব্যান্ড প্রোটোকল DApps এর জন্য অন-চেইন ও অফ-চেইন ডেটা উৎসের মধ্যে তথ্য বিনিময় সক্ষম করে। মূলত ইথেরিয়াম (ETH) ব্লকচেইনে তৈরি প্রোটোকলটি, গ্যাস ফি কমাতে এবং খরচ অপ্টিমাইজ করতে জুন 2020 সালে কসমস নেটওয়ার্কে স্থানান্তরিত হয়েছিল। 

একটি ওরাকল নেটওয়ার্ক হিসেবে, ব্যান্ড প্রোটোকল হল বাস্তব-বিশ্ব, অফ-চেইন ডেটা ও ব্লকচেইনের মধ্যে একটি মধ্যস্থতাকারী। এগুলোর পরিষেবা প্রকৃত অফ-চেইন ইভেন্ট ও তথ্যের উপর ভিত্তি করে স্মার্ট কন্ট্রাক্টকে এক্সিকিউট করার সুযোগ প্রদান করে। নির্ভরযোগ্য ওরাকল না থাকলে, DApps এর জন্য তথ্যের স্বচ্ছ উৎস নিয়ে কোনো বিশ্বস্ত, ডিসেন্ট্রালাইজড পদ্ধতিতে কাজ করা কঠিন হয়।

ব্যান্ড প্রোটোকল কিভাবে কাজ করে?

ব্যান্ড প্রোটোকল কসমস SDK ব্যবহার করে নির্মিত স্বাধীন ব্যান্ডচেইন ব্লকচেইন ব্যবহার করে। ডেভলপাররা কাস্টমাইজযোগ্য ওরাকল স্ক্রিপ্ট ডেভলপ করতে ব্যান্ডচেইন ব্যবহার করতে পারে, যা DApps ও স্মার্ট কন্ট্রাক্টের জন্য অফ-চেইন রিয়েল ডেটা প্রদান করে। কাস্টমাইজযোগ্য ওরাকল স্ক্রিপ্টগুলোর মধ্যে রয়েছে ডেটা, ডেটা উত্স, ডেটা রিপোর্ট করার জন্য প্রয়োজনীয় ভ্যালিডেটরের সংখ্যা এবং ডেটা একত্রিত করার পদ্ধতি।

কোনো ওরাকল স্ক্রিপ্ট চালানোর ফলে নিম্নলিখিত প্রবাহ শুরু হয়:

1. কোনো DApp ডেটা রিকোয়েস্ট করে সেটির কাস্টমাইজড ওরাকল স্ক্রিপ্ট অনুযায়ী।

2. এই রিকোয়েস্টটি দ্বৈবচয়নের ভিত্তিতে করা ভ্যালিডেটরদের একটি সেট দ্বারা গৃহীত হয়, যারা নির্দিষ্ট ডেটা উৎস থেকে ডেটা টেনে সাড়া দেয়।

3. কাস্টমাইজড ওরাকল স্ক্রিপ্ট অনুযায়ী বিভিন্ন ভ্যালিডেটরদের থেকে ডেটা রিপোর্ট একত্রিত করা হয়।

4. এই চূড়ান্ত সমষ্টিগত ডেটা স্থায়ীভাবে ব্যান্ডচেইনে সংরক্ষণ করা হয় এবং একটি ওরাকল ডেটা প্রমাণ তৈরি হয়।

5. যাচাইকৃত ওরাকল ডেটা সেই DApps বা ব্লকচেইনে ট্রান্সফার করা হয় যেটি রিকোয়েক্ট করেছিল।

ব্যান্ড প্রোটোকল কোন কনসেনশাস প্রোটোকল ব্যবহার করে?

ব্যান্ড প্রোটোকল তার ওরাকল নেটওয়ার্ককে সুরক্ষিত করতে তার নেটিভ BAND টোকেন এবং একটি ডেলিগেটেড স্ট্যাকের প্রমাণ কনসেনসাস মেকানিজম ব্যবহার করে। BandChain এর বর্তমানে 90টির বেশি পেশাদার ও কমিউনিটি নোড অপারেটর ব্লকচেইনে কাজ করছে। ক্ষতিকর আচরণকে নিরুৎসাহিত করতে প্রতিটি নোড অপারেটরকে অবশ্যই নেটওয়ার্কে BAND টোকেন স্ট্যাক করতে হবে। ডেটা রিকোয়েস্ট সফলভাবে প্রক্রিয়া করার পুরস্কার হিসেবে, ভ্যালিডেটররা ক্যোয়ারী ফি এবং ব্লক পুরস্কারের একটি শেয়ার পান।

BAND টোকেন হোল্ডার হিসেবে নেটওয়ার্কে অংশগ্রহণের দুটি উপায় রয়েছে: ভ্যালিডেটর হিসেবে বা প্রতিনিধি হিসেবে। ডেটার জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে ব্যান্ডচেইনের ভ্যালিডেটরদেরকেও ব্যান্ড টোকেন BandChain-এ BAND স্ট্যাক করতে হয়।

টোকেন হোল্ডাররা স্ট্যাকিং পুরস্কার এবং সংগৃহিত ডেটা রিকোয়েস্ট ফি অর্জনের জন্য তাদের টোকেনগুলোকে ভ্যালিডেটরদের কাছে স্ট্যাক বা অর্পণ করতে পারে। অধিকন্তু, BAND টোকেনগুলো প্রোটোকলের গভার্নেন্স মেকানিজমের জন্যও ব্যবহৃত হয়।

ব্যান্ড প্রোটোকলের মূল লক্ষ্য কী কী?

ব্যান্ড প্রোটোকলের অধিকাংশ আকর্ষণীয় গুণাবলী ইথিরিয়াম থেকে কসমস-এ রূপান্তর হওয়া থেকে আসে। প্রজেক্টটি তিনটি ডিজাইন লক্ষ্য নিয়ে তৈরি করা হয়েছিল:

1. গতি এবং স্কেলেবিলিটি - ন্যূনতম বিলম্বে বিপুল সংখ্যক ডেটা রিকোয়েস্ট সক্ষম করা।

2. ক্রস-চেইন সামঞ্জস্যতা - উন্মুক্ত-ব্লকচেইন হয়ে পাবলিকলি উপলভ্য অধিকাংশ ব্লকচেইকে পরিষেবা করতে সক্ষম হওয়া।

3. ডেটা নমনীয়তা - কোন জেনেরিক সিস্টেমের সাথে ডেটা পুনরুদ্ধার ও একত্রিত করার বিভিন্ন পদ্ধতিকে সমর্থন করা।

ব্যান্ড প্রোটোকল কিভাবে এই লক্ষ্য অর্জন করার চেষ্টা করে?

কসমস নেটওয়ার্কের ইউনিক IBC (ইন্টার-ব্লকচেন কমিউনিকেশন) প্রোটোকল ব্লকচেইনের জন্য দ্রুত আন্তঃকার্যক্ষমতা ও স্বায়ত্তশাসন প্রদান করে। এই বৈশিষ্ট্যটি ব্যান্ড প্রোটোকলকে ইথেরিয়াম, ফ্যান্টম, অ্যাভাল্যাঞ্চ এবং আরও অনেক কিছুসহ বিভিন্ন নেটওয়ার্কে নির্মিত প্রকল্পগুলোর সাথে পরিষেবা এবং অংশীদারিত্ব করার সুযোগ প্রদান করে। 

ব্যান্ড স্ট্যান্ডার্ড ডেটাসেটে ক্রমবর্ধমান সংখ্যক ডেটা উত্স থেকে 80টির বেশি ডেটা ফিডের একটি সংগ্রহ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এই ডিসেন্ট্রালাইজড প্রাইস ফিডগুলো ব্লকচেইন নেটওয়ার্কে ডেভলপ ও ডেপ্লয় করার সময় DApp ডেভলপারদের সৃজনশীল, অ্যাজাইল এবং নমনীয় হবার সুযোগ দেয়।

শেষ কথা

ব্যান্ড প্রোটোকল হল একটি ক্রমবর্ধমান ওরাকল সলিউশন প্রোভাইডার যার নির্দিষ্ট ফোকাস Web3 সক্ষম করার উপরে নিবন্ধ। Web3 ইকোসিস্টেমের অংশ হতে চাইছেন এমন ডেভেলপারদের কাছে একটি দ্রুত, স্কেলযোগ্য, কাস্টমাইজযোগ্য এবং আন্তঃপরিচালনযোগ্য পরিষেবার লক্ষ্যগুলো আকর্ষণীয় হয়ে উঠতে পারার কথা।