মেটাভার্স কী?
সুচিপত্র
ভূমিকা
মেটাভার্সের সংজ্ঞা কী?
ভিডিও গেম কেন মেটাভার্সের সাথে যুক্ত?
ক্রিপ্টো কিভাবে মেটাভার্সে খাপ খায়?
মেটাভার্সের কাজ কী?
মেটাভার্সের উদাহরণ
মেটাভার্সের ভবিষ্যত কী?
শেষ কথা
মেটাভার্স কী?
হোম
নিবন্ধ
মেটাভার্স কী?

মেটাভার্স কী?

প্রকাশিত হয়েছে Sep 21, 2021আপডেট হয়েছে Nov 11, 2022
9m

TL;DR

মেটাভার্স হল স্থায়ী, অনলাইন, 3D মহাবিশ্বের একটি ধারণা যা একাধিক ভিন্ন ভিন্ন ভার্চুয়াল স্পেসকে একত্রিত করে। আপনি এটিকে ইন্টারনেটের ভবিষ্যৎ নতুন সংস্করণ হিসেবে ভাবতে পারেন। মেটাভার্স ব্যবহারকারীদেরকে এইসকল 3D স্পেসগুলোতে একসাথে কাজ করতে, দেখা করতে, গেমিং করতে এবং সামাজিকীকরণ করার সুযোগ প্রদান করবে।

মেটাভার্স সম্পূর্ণরূপে বিদ্যমান নেই, তবে কিছু কিছু প্ল্যাটফর্মে মেটাভার্সের মতো উপাদান রয়েছে। ভিডিও গেমগুলো বর্তমানে অফারে মেটাভার্সের নিকটতম অভিজ্ঞতা প্রদান করে। ইন-গেম ইভেন্ট হোস্ট করে এবং ভার্চুয়াল অর্থনীতি তৈরি করার মাধ্যমে ডেভলপাররা কোনো গেম আসলে কী সেটির সীমানা বিস্তৃত করেছে।

বাধ্যতামূলক না হলেও, ক্রিপ্টোকারেন্সিগুলো মেটাভার্সের জন্য চমৎকারভাবে উপযুক্ত হতে পারে। তারা বিভিন্ন ধরণের ইউটিলিটি টোকেন এবং ভার্চুয়াল কালেক্টিবলের (NFTs) মাধ্যমে একটি ডিজিটাল অর্থনীতি তৈরির সুযোগ প্রদান করে। ট্রাস্ট ওয়ালেট ও মেটামাস্কের মতো ক্রিপ্টো ওয়ালেট ব্যবহার করেও মেটাভার্স উপকৃত হবে। এছাড়াও, ব্লকচেইন প্রযুক্তি স্বচ্ছ ও নির্ভরযোগ্য গভর্নেন্স ব্যবস্থা প্রদান করতে পারে।

ব্লকচেইন, মেটাভার্সের মতো অ্যাপ্লিকেশনগুলো ইতোমধ্যেই বিদ্যমান এবং বসবাসযোগ্য আয় প্রদান করে। Axie Infinity একটি প্লে-টু-আর্ন গেম যা অনেক ব্যবহারকারী তাদের আয় যোগাড় করতে খেলে থাকেন। SecondLive এবং Decentraland হল ব্লকচেইন ওয়ার্ল্ড ও ভার্চুয়াল রিয়েলিটি অ্যাপকে সফলভাবে মিশ্রিত করার অন্যান্য উদাহরণ।

ফিউচারের দিকে তাকালে দেখা যায়, বৃহৎ টেক জায়ান্টরা নেতৃত্ব প্রদানের চেষ্টা করছে। তবে, ব্লকচেইন শিল্পের ডিসেন্ট্রালাইজড চরিত্র ছোট খেলোয়াড়দেরকেও মেটাভার্সের ডেভলপমেন্টে অংশগ্রহণ করার সুযোগ দিচ্ছে।


ভূমিকা

আর্থিক, ভার্চুয়াল এবং ভৌত জগতের মধ্যে সংযোগগুলো ক্রমবর্ধমানভাবে সংযুক্ত হয়েছে। আমাদের জীবন পরিচালনার জন্য আমরা যে ডিভাইসগুলো ব্যবহার করি সেগুলো একটি বাটনের স্পর্শে আমরা যা চাই তা প্রায় সব কিছুতে আমাদের প্রবেশাধিকার দেয়। ক্রিপ্টো ইকোসিস্টেমও এর বাইরে নয়। NFT, ব্লকচেইন গেমস এবং ক্রিপ্টো পেমেন্ট এখন আর ক্রিপ্টো গিকদের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। এগুলো এখন একটি উন্নয়নশীল মেটাভার্সের অংশ হিসেবে সহজেই উপলভ্য।


মেটাভার্সের সংজ্ঞা কী?

মেটাভার্স হল অনলাইন, 3D, ভার্চুয়াল স্পেসের একটি ধারণা যা ব্যবহারকারীদেরকে তাদের জীবনের সকল ক্ষেত্রে সংযুক্ত করে। একটি একক ব্রাউজারের মাধ্যমে অ্যাক্সেসযোগ্য বিভিন্ন ওয়েবসাইট থাকা ইন্টারনেটের মতো এটি একাধিক প্ল্যাটফর্মকে সংযুক্ত করবে। 

নিল স্টিফেনসনের বিজ্ঞান-কল্পকাহিনী উপন্যাস স্নো ক্র্যাশে ধারণাটি তৈরি হয়েছিল। তবে, মেটাভার্সের ধারণা একসময় কল্পকাহিনী হলেও, এখন মনে হচ্ছে ভবিষ্যতে এটি বাস্তব হলেও হতে পারে।

মেটাভার্সটি অগমেন্টেড রিয়েলিটি দ্বারা চালিত হবে যেখানে প্রত্যেক ব্যবহারকারী একটি চরিত্র বা অ্যাভাটার নিয়ন্ত্রণ করবে। উদাহরণস্বরূপ, আপনি আপনার ভার্চুয়াল অফিসে একটি Oculus VR হেডসেটের মাধ্যমে একটি মিশ্র বাস্তবতার মিটিং করতে পারেন, কাজ শেষে কোনো ব্লকচেইন-ভিত্তিক গেমে আরাম করতে পারেন এবং তারপরে মেটাভার্সের ভিতরে আপনার ফাইন্যান্স ও ক্রিপ্টো পোর্টফোলিও পরিচালনা করতে পারেন।

আপনি মেটাভার্সের কিছু দিক ইতোমধ্যেই বিদ্যমান থাকা ভার্চুয়াল ভিডিও গেম জগতে দেখতে পারেন। Second Life ও Fortnite-এর মতো গেম বা Gather.town-এর মতো কাজের সামাজিকীকরণের সরঞ্জামগুলো অনলাইন জগতে আমাদের জীবনের একাধিক উপাদানকে একত্রিত করে। এই অ্যাপ্লিকেশনগুলো মেটাভার্স না হলেও এগুলো কিছুটা সে ধরণেরই। মেটাভার্স এখনও অস্থিত্বশীল নয়। 

গেমিং বা সোশ্যাল মিডিয়াকে সমর্থন করার পাশাপাশি, মেটাভার্স অর্থনীতি, ডিজিটাল পরিচয়, ডিসেন্ট্রালাইজড গভর্নেন্স এবং অন্যান্য অ্যাপ্লিকেশনগুলোকে একত্রিত করবে। এমনকি আজও, মূল্যবান আইটেম ও মুদ্রার ব্যবহারকারী তৈরি করা এবং মালিকানা একটি একক, ঐক্যবদ্ধ মেটাভার্স বিকাশে সহায়তা করে। ব্লকচেইনকে এই সকল বৈশিষ্ট্যগুলো এই ভবিষ্যত প্রযুক্তিকে চালিত করার সম্ভাবনা প্রদান করে।


ভিডিও গেম কেন মেটাভার্সের সাথে যুক্ত?

3D ভার্চুয়াল বাস্তবতার উপর জোর দেওয়ার কারণে, ভিডিও গেমগুলো বর্তমানে মেটাভার্সের সবচেয়ে নিকটতম অভিজ্ঞতা প্রদান করে। যদিও, এগুলো 3D হওয়াই একমাত্র কারণ নয়। ভিডিও গেমগুলো এখন এমন পরিষেবা ও বৈশিষ্ট্য অফার করে যা আমাদের জীবনের অন্যান্য দিকগুলোতেও পৌঁছে যায়। ভিডিও গেম Roblox এমনকি কনসার্ট ও মিটআপের মতো ভার্চুয়াল ইভেন্টও হোস্ট করে। খেলোয়াড়রা এখন শুধুমাত্র আর খেলে না; তারা তাদের জীবনের অন্যান্য ক্রিয়াকলাপ ও অংশগুলোর জন্য "সাইবারস্পেসে" এটি ব্যবহার করে। উদাহরণস্বরূপ, মাল্টিপ্লেয়ার গেম Fortnite-এ, 12.3 মিলিয়ন খেলোয়াড় ট্র্যাভিস স্কটের ভার্চুয়াল ইন-গেম মিউজিক ট্যুরে অংশগ্রহণ করেছিল।


ক্রিপ্টো কিভাবে মেটাভার্সে খাপ খায়?

মেটাভার্সের 3D দিকটি গেমিং প্রদান করলেও জীবনের সকল দিককে কভার করতে পারা কোনো ভার্চুয়াল জগতের প্রয়োজনীয় সবকিছু কভার করে না। ক্রিপ্টো প্রয়োজনীয় অন্যান্য মূল অংশগুলো প্রদান করতে পারে, যেমন মালিকানার ডিজিটাল প্রমাণ, ভ্যালু ট্রান্সফার, গভর্ন্যান্স এবং অ্যাক্সেসিবিলিটি। কিন্তু আসলে এগুলোর মানে কী?

ভবিষ্যতে যদি আমরা মেটাভার্সে কাজ করি, সামাজিকীকরণ করি এবং এমনকি ভার্চুয়াল আইটেম ক্রয় করি, আমাদের মালিকানা প্রদর্শনের একটি নিরাপদ উপায় প্রয়োজন হবে। মেটাভার্স জুড়ে এই আইটেম ও অর্থ ট্রান্সফারের আমাদের নিরাপদও বোধ করতে হবে। পরিশেষে, এটি আমাদের জীবনের একটি বড় অংশে পরিণত হলে আমরা মেটাভার্সের সিদ্ধান্ত গ্রহণেও ভূমিকা রাখতে চাই।

কিছু কিছু ভিডিও গেমে ইতোমধ্যেই কিছু মৌলিক সলিউশন রয়েছে, কিন্তু অনেক ডেভেলপার পরিবর্তে ক্রিপ্টো এবং ব্লকচেইন ব্যবহার করে অধিকতর ভালো বিকল্প হিসেবে। বিষয়গুলো পরিচালনা করার জন্য ব্লকচেইন একটি ডিসেন্ট্রালাইজড ও স্বচ্ছ উপায় প্রদান করে আর অন্যদিকে ভিডিও-গেম ডেভলপমেন্ট অধিকতর সেন্ট্রালাইজড।

ব্লকচেইন ডেভেলপাররা ভিডিও গেম ওয়ার্ল্ড থেকেও অনুপ্রেরণে গ্রহণ করে। ডিসেন্ট্রালাইজড ফাইন্যান্স (DeFi) এবং GameFi-এ গেমিফিকেশন প্রচলিত। মনে হচ্ছে ভবিষ্যতে এতটাই মিল থাকবে যে দুটি বিশ্ব আরও একীভূত হয়ে যেতে পারে। মেটাভার্সের জন্য উপযুক্ত ব্লকচেইনের এমন মূল দিকগুলো হল:

1. মালিকানার ডিজিটাল প্রমাণ: আপনার প্রাইভেট কী-তে অ্যাক্সেসসহ একটি ওয়ালেটের মালিক হয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ব্লকচেইনে আপনি কার্যকলাপের মালিকানা বা কোনো অ্যাসেট প্রমাণ করতে পারেন। উদাহরণস্বরূপ, জবাবদিহিতা প্রদর্শনের জন্য কর্মস্থলে থাকাকালীন ব্লকচেইনে আপনার লেনদেনের একটি সঠিক প্রতিলিপি দেখাতে পারেন। ডিজিটাল পরিচয় ও মালিকানার প্রমাণ প্রতিষ্ঠার জন্য ওয়ালেট সবচেয়ে নিরাপদ ও শক্তিশালী পদ্ধতিগুলোর মধ্যে একটি।

2. ডিজিটাল সংগ্রহযোগ্যতা: কোনো জিনিসের মালিক কে তা যেমন আমরা প্রতিষ্ঠিত করতে পারি, তেমনি আমরা এটিও দেখাতে পারি যে একটি আইটেম আসল ও ইউনিক। বাস্তব-জীবনের ক্রিয়াকলাপগুলোকে অন্তর্ভুক্ত করতে চাওয়া কোনো মেটাভার্সের জন্য এটি আরও গুরুত্বপূর্ণ। NFT এর মাধ্যমে, আমরা এমন বস্তু তৈরি করতে পারি যেগুলো 100% ইউনিক ও কখনোই হুবহু কপি বা নকল করা যাবে না। ব্লকচেইন ফিজিক্যাল আইটেমগুলোর মালিকানাও উপস্থাপন করতে পারে।

3. ভ্যালু ট্রান্সফার: নিরাপদে ভ্যালু ট্রান্সফার করার একটি উপায় কোনো মেটাভার্সের প্রয়োজন যেটিকে ব্যবহারকারীরা বিশ্বাস করেন। মাল্টিপ্লেয়ার গেমের ইন-গেম কারেন্সি ব্লকচেইনের ক্রিপ্টো থেকে কম সুরক্ষিত। ব্যবহারকারীরা মেটাভার্সে প্রচুর সময় ব্যয় করলে এবং সেখানে এমনকি অর্থ উপার্জন করলেও তাদের একটি নির্ভরযোগ্য মুদ্রার প্রয়োজন হবে।

4. গভর্নেন্স: মেটাভার্সের সাথে আপনার মিথস্ক্রিয়ার নিয়মগুলো নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষমতাও ব্যবহারকারীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হওয়া উচিত। বাস্তব জীবনে, কোম্পানিতে আমাদের ভোটাধিকার রয়েছে এবং নেতা ও সরকার নির্বাচন করতে পারি। মেটাভার্সেরও সুষ্ঠু গভর্ন্যান্স বাস্তবায়নের পদ্ধতি প্রয়োজন হবে এবং ব্লকচেইন ইতোমধ্যেই এটি করার একটি উপায় হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে।

5. অ্যাক্সেসিবিলিটি: পাবলিক ব্লকচেইনে সারা বিশ্বের যেকেউই ওয়ালেট তৈরি করতে পারে। আপনাকে কোনো টাকা দিতে হবে না বা কোনো বিবরণ দিতে হবে না যা কোনো ব্যাংক অ্যাকাউন্টের বিপরীত। এই বিষয়টি এটিকে ফাইন্যান্স এবং একটি অনলাইন, ডিজিটাল পরিচয় পরিচালনা করার সবচেয়ে অ্যাক্সেসযোগ্য উপায়গুলোর মধ্যে একটি করে তোলে।

6. আন্তঃকার্যক্ষমতা: ব্লকচেইন প্রযুক্তি ক্রমাগত বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মের মধ্যে সামঞ্জস্যতা উন্নত করছে। পলকাডট (DOT) এবং অ্যাভালাঞ্চ (AVAX) এর মতো প্রজেক্টগুলো একে অপরের সাথে যোগাযোগ করতে সক্ষম কাস্টম ব্লকচেইন তৈরি করার সুযোগ প্রদান করে। কোনো একক মেটাভার্সকে একাধিক প্রজেক্টের সাথে সংযোগ করতে হবে এবং এর জন্য ব্লকচেইন প্রযুক্তির ইতোমধ্যেই সমাধান রয়েছে।


মেটাভার্সের কাজ কী?

আমরা যেমনটি উল্লেখ করেছি, মেটাভার্স জীবনের সকল দিককে এক জায়গায় একত্রিত করবে। এখন বহু লোকই ইতোমধ্যেই বাড়িতে কাজ করছে, মেটাভার্সে আপনি একটি 3D অফিসে প্রবেশ করতে এবং আপনার সহকর্মীদের অ্যাভাটারের সাথে যোগাযোগ করতে সক্ষম হবেন। আপনার কাজটিও মেটাভার্স সম্পর্কিত হতে পারে এবং আপনাকে মেটাভার্সে সরাসরি ব্যবহারযোগ্য আয় প্রদান করতে পারে। প্রকৃতপক্ষে, এই ধরনের চাকরি ইতোমধ্যেই একই ধরণে রয়েছে।

GameFi এবং প্লে-টু-আর্ন মডেলগুলো এখন বিশ্বব্যাপী মানুষের জন্য আয়ের স্থির প্রবাহ প্রদান করে। ভার্চুয়াল জগতে মানুষজন তাদের জীবনযাপন ও উপার্জন করতে ইচ্ছুক আছে বলে প্রমাণ করায় এই অনলাইন চাকরিগুলো ভবিষ্যতে মেটাভার্স বাস্তবায়নের দুর্দান্ত নিয়ামক। Axie Infinity এবং Gods Unchained-এর মতো প্লে-টু-আর্ন গেমগুলোতে এমনকি 3D ওয়ার্ল্ড বা অ্যাভাটার নেই। তবে, নীতিটি হলো এই যে এগুলো সম্পূর্ণভাবে অনলাইন বিশ্বে অর্থ উপার্জনের উপায় হিসেবে মেটাভার্সের অংশ হতে পারে।


মেটাভার্সের উদাহরণ

আমাদের এখনও কোনো একক, সংযুক্ত মেটাভার্স না থাকলেও, আমাদের কাছে মেটাভার্সের মতো প্রচুর প্ল্যাটফর্ম ও প্রজেক্ট রয়েছে। সাধারণত, এগুলোর মধ্যে NFT ও অন্যান্য ব্লকচেইন উপাদানগুলোও রয়েছে। আসুন তিনটি উদাহরণ দেখি:

SecondLive

‌SecondLive হল একটি 3D ভার্চুয়াল পরিবেশ যেখানে ব্যবহারকারীরা সামাজিকীকরণ, শিক্ষণ ও ব্যবসার জন্য অ্যাভাটার নিয়ন্ত্রণ করেন। কালেক্টিবল সোয়াপ করার জন্য প্রজেক্টটির একটি NFT মার্কেটপ্লেসও রয়েছে। SecondLiev, 2020 সালের সেপ্টেম্বরে প্রথম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অংশ হিসেবে Binance স্মার্ট চেইনের হারভেস্ট ফেস্টিভ্যালের আয়োজন করেছিল। ব্যবহারকারীরা যাতে ঘুরে দেখতে ও যোগাযোগ করতে পারে সে উদ্দেশ্যে ভার্চুয়াল এক্সপো BSC ইকোসিস্টেমে বিভিন্ন প্রজেক্ট প্রদর্শন করে।


Axie Infinity

Axie Infinity একটি প্লে-টু-আর্ন গেম যা উন্নয়নশীল দেশগুলোর খেলোয়াড়দের জন্য ধারাবাহিক ইনকামের সুযোগ প্রদান করে। Axies নামে পরিচিত তিনটি প্রাণী কিনে বা উপহার পাওয়ার মাধ্যমে, কোনো খেলোয়াড় স্মুথ লাভ পোশন (SLP) টোকেন ফার্মিং করা শুরু করতে পারে। খোলা বাজারে বিক্রি করলে, কোনো খেলোয়াড় কতটা খেলে ও মার্কেট মূল্যের উপর নির্ভর করে মোটামুটি $200 থেকে $1000 (USD) পর্যন্ত উপার্জন করতে পারে।

Axie Infinity কোনো একক 3D চরিত্র বা অ্যাভাটার প্রদান না করলেও এটি ব্যবহারকারীদের একটি মেটাভার্স-সদৃশ কাজের সুযোগ দেয়। আপনি ইতোমধ্যেই ফিলিপিনোদের দ্বারা এটিকে ফুল-টাইম চাকরি বা ওয়েলফেয়ারের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করার বিখ্যাত গল্প শুনেছেন।


Decentraland

Decentraland একটি অনলাইন, ডিজিটাল বিশ্ব যা ক্রিপ্টোকারেন্সি, NFT এবং ভার্চুয়াল রিয়েল এস্টেট থাকা সামাজিক উপাদানগুলোকে একত্রিত করে। এর উপরে, খেলোয়াড়রা প্ল্যাটফর্মের পরিচালনায় সক্রিয় ভূমিকাও গ্রহণ করে। অন্যান্য ব্লকচেইন গেমের মতো, NFT প্রসাধনী কালেক্টিবলের প্রতিনিধিত্ব করতে ব্যবহৃত হয়। এগুলো 16x16 মিটার ল্যান্ড পার্সেল LAND-এর জন্যেও ব্যবহৃত হয় যেগুলোকে ব্যবহারকারীরা ক্রিপ্টোকারেন্সি MANA-এর মাধ্যমে গেমের মধ্যে কিনতে পারে। এই সবগুলোর সমন্বয় একটি জটিল ক্রিপ্টো-অর্থনীতি তৈরি করে।


মেটাভার্সের ভবিষ্যত কী?

একটি সমন্বিত মেটাভার্স তৈরির জন্য প্রকাশ হওয়া উচ্চকণ্ঠের মধ্যে ফেসবুক অন্যতম। ফেসবুকের Diem স্ট্যাবলকয়েন প্রজেক্টের কারণে এটি একটি ক্রিপ্টো-চালিত মেটাভার্সের জন্য বিশেষভাবে আকর্ষণীয়। মার্ক জুকারবার্গ দূরবর্তী কাজকে সমর্থন করতে এবং উন্নয়নশীল দেশগুলোর মানুষের জন্য আর্থিক সুযোগ উন্নত করতে একটি মেটাভার্স প্রজেক্ট ব্যবহার করার জন্য তার পরিকল্পনার কথা স্পষ্টভাবে উল্লেখ করেছেন। ফেসবুকের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম, যোগাযোগ ও ক্রিপ্টো প্ল্যাটফর্মের মালিকানা এইসকল বিশ্বকে একত্রিত করার একটি ভালো সূচনাবিন্দু প্রদান করে। মাইক্রোসফ্ট, অ্যাপল এবং গুগলসহ বৃহৎ বৃহৎ অন্যান্য প্রযুক্তি সংস্থাগুলোও একটি মেটাভার্স তৈরির দিকে মনযোগ নিবন্ধ করছে।

ক্রিপ্টো-চালিত মেটাভার্সের প্রসঙ্গ আসলে, NFT মার্কেটপ্লেস ও 3D ভার্চুয়াল মহাবিশ্বগুলোর মধ্যে আরো অধিক একীকরণকে পরবর্তী ধাপ বলেই মনে হয়। NFT হোল্ডাররা ইতোমধ্যেই OpenSea এবং BakerySwap এর মতো মার্কেটপ্লেসগুলোতে তাদের একাধিক উৎসের পণ্য বিক্রি করতে পারে, কিন্তু এর জন্য এখনও কোনো জনপ্রিয় 3D প্ল্যাটফর্ম নেই। বৃহৎ পরিসরে, বড় প্রযুক্তি জায়ান্টদের চেয়ে বেশি অর্গানিক ব্যবহারকারীসহ জনপ্রিয় মেটাভার্স-সদৃশ অ্যাপ্লিকেশন ডেভলপ করার সম্ভাবনা ব্লকচেইন ডেভলপারদের রয়েছে।


শেষ কথা

কোনো একক, সমন্বিত মেটাভার্স সম্ভবত অনেক দূরে হলেও আমরা ইতোমধ্যেই এমন অগ্রগতি দেখতে পাচ্ছি যা এর সৃষ্টির দিকে ধাবিত করতে পারে। এটি ব্লকচেইন প্রযুক্তি ও ক্রিপ্টোকারেন্সির জন্য আরেকটি সাই-ফাই ব্যবহার ক্ষেত্র বলে মনে হচ্ছে। আমরা সত্যিই কোনো মেটাভার্সের বিন্দুতে পৌঁছাতে পারি কিনা তা নিশ্চিত নয়। কিন্তু এর মধ্যে, আমরা ইতোমধ্যেই মেটাভার্সের মতো প্রজেক্ট অনুভব করতে পারি এবং আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ব্লকচেইনকে আরো একীভূত করা চালিয়ে যেতে পারি।